শীর্ষ সন্ত্রাসী পরিচয়ে বিকাশে টাকা আদায়, আটক ৩ প্রতারক

5

বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-১১ এর একটি অভিযানিক দল। বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১১টায় আড়াইহাজারের নারায়ণগঞ্জ-নরসিংদী মহাসড়কের বান্টিবাজার হতে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, সৈয়দ আকতার হোসেন লিটন (৪৫), মুকলেসুর রহমান ওরফে দয়াল বাবা (৫২) ও দুলাল ওরফে দুলাল পাগলা (৩২)।

বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমে র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী শামশের উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, এই সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র ভুয়া মোবাইল সিম ব্যবহার করে। দেশের বড় ব্যবসায়ী ও উচ্চপদস্থ চাকুরীজীবিদের শীর্ষ সন্ত্রাসী পরিচয়ে মোবাইলে হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছে। ২৫ ফেব্রুয়ারি আড়াইহাজারের জনৈক মমতাজ হাসান র‌্যাব-১১ অধিনায়ক বরাবর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানান, একটি অপরিচিত মোবাইল নাম্বার (০১৮৮০৮৭৭০৮৬) থেকে দেশের শীর্ষ সন্ত্রাসী মিরপুরের শাহাদাত পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি করে।

অভিযোগের অনুসন্ধানে জানা যায়, ঐ পরিচয়ে একই ব্যক্তি একাধিক সিম ব্যবহার করে, দেশের ব্যবসায়ী, সরকারি ও বেসরকারি চাকুরীজীবিদের মোবাইলে হুমকি দিয়ে চাঁদার দাবি করেছে। অনেকে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তার বিষয় বিবেচনা করে বিকাশে চাঁদা দিয়েছে। আবার অনেকে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরিও করেছে।

র‌্যাব আরো জানায়, র‌্যাব-১১ এর একটি দল দীর্ঘদিন অনুসন্ধান ও গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে এই প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত রাতে গোপন সূত্রের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে, নারায়ণগঞ্জ-নরসিংদী মহাসড়কের আড়াইহাজার থানার বান্টিবাজার থেকে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাজ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, এই সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের মূলহোতা সৈয়দ আকতার হোসেন লিটন। প্রতারণাই তার মূল পেশা। দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে লিটন মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে। জ্বীনের বাদশা হয়ে প্রতারণা করার অপরাধে একবার গ্রেফতারও হয়েছিল। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

5

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *