সোনারগাঁয়ে ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে ইট ভাটায়

6

সোনারগাঁ বার্তা ২৪ ডটকম: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে জামপুর এলাকায় ফসলি জমির মাটি লুট করে রূপগঞ্জের ইটভাটায় বিক্রি করছে। প্রশাসনের নিরবতায় স্থানীয় একটি প্রভাবশালী বাহিনীর নির্যাতনের ভয়ে নিরীহ কৃষকরা তাদের ত্রি-ফসলী জমির মাটি বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন।

ভুক্তভোগী কৃষক ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার বদরুজ্জামান বদুর নেতৃত্বে পেরাব গ্রামের সালাউদ্দিন, সজিব, ফয়সালসহ ২৫-২৬ জনের একটি সশস্ত্র বাহিনী জামপুর ইউনিয়নের কাহেনা মৌজার বেলাবো ও কাহেনা এলাকার কৃষকদের ত্রি-ফসলী জমির মাটি জোরপূর্বক কেটে নিয়ে পাশের উপজেলা রূপগঞ্জের মাসাবো, বরপা ও স্থানীয় সিংলাবো এলাকার ইটভাটায় বিক্রি করছে।

তারা আরো জানান, বদু বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে তারা বাড়ি-ঘরে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে আবার গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে নানাভাবে হয়রানি করে। এ কারণে এখানকার মানুষ তাদের ভয়ে সব সময়ই আতঙ্কগ্রস্থ থাকে।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, বেলাব, কাহেনা ও পেরাব এলাকার কৃষি জমি খনন যন্ত্রেও সাহায্যে প্রায় ১০ ফুট গভীর গর্ত করে কেটে নিচ্ছে। একটি জমির মাটি কিনে গভীরভাবে গর্ত করে মাটি কাটায় পাশের জমিও ভেঙে যাচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে পাশের জমির মালিকরা মাটি বিক্রি করে দিচ্ছে। তাছাড়া মাটি পরিবহনের জন্য  জোড় করে অন্যের বসত ভিটা কেটে রাস্তা তৈরি করছে।

স্থানীয়রা জানান, এখানকার অধিকাংশ মানুষ কৃষি নির্ভর। এসব ফসলি জমির উর্বর মাটি কেটে নিলে কৃষক পরিবারগুলোর জীবিকা নির্বাহে চরম ভোগান্তিরর শিকার হবে। তাই তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্থক্ষেপ কামনা করছেন।

মাটি বিক্রি করেছেন এমন চার-পাঁচজন কৃষক জানান, ইটভাটায় মাটি সরবরাহের জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের দালাল হিসেবে নিয়োগ দেয় ইট ভাটার মালিকরা। তারা আবার এলাকার বখাটে ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িতদের গ্রামে গ্রামে পটিয়ে টাকার লোভ দেখায়। এতে কাজ না হলে হুমকি ও ভয়ভীতি  দেখিয়ে কৃষকদের মাটি বিক্রি করতে বাধ্য করে।

এ ব্যাপারে জামপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার বদরুজ্জামান বদু বলেন, আমি কৃষকদের ন্যায্য দাম দিয়ে মাটি কিনে ইটভাটায় বিক্রি করছি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরা আক্তার জানান, কৃষি জমির টপসয়েল কেটে ইটভাটায় বিক্রি করার ফলে মাটির উর্বরতা শক্তি হারিয়ে চাষাবাদের অযোগ্য হচ্ছে। ফলে ভবিষতে হুমকির মুখে পড়বে সোনারগাঁয়ে কৃষি ও কৃষি পরিবারগুলো।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রকিবুর রহমান খান বলেন, অত্র এলাকার কৃষি জমির মাটি কাটার বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

6