ড্রেজারের পাইপ ও বুষ্টার বসানোর চেষ্টা। গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ।

6

সোনারগাঁ বার্তা ২৪ ডটকম: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার উত্তরষোল্লা পাড়া এলাকায় ড্রেজারের পাইপ ও বুষ্টার বসানোর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে ষোল্লাপাড়া গ্রামের বাসিন্দারা একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ করেছেন এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
সোনারগাঁ পৌরসভার ষোল্লাপাড়া গ্রামের বাসিন্দারা জানান, উত্তর ষোল্লাপাড়া এলাকায় ঘনবসতি এলাকা ও মসজিদের পাশে স্থানীয় প্রভাবশালী মজিবুর রহমান, মাসুদ, সুজন মিয়া, রাজু মিয়া, আলমগীর হোসেন ড্রেজারের পাইপ ও বুষ্টার স্থাপনের চেষ্টা করে। এ সময় গ্রামবাসীরা বাধা দিলে ২০/৩০ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গিয়ে গ্রামবাসীদের মিথ্যা মামলা ও প্রাণনাশের হুমকি দেন। এতে গ্রামবাসীরা বাধা দিয়েও আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। এ ঘটনায় গ্রামবাসীরা একটি গনস্বাক্ষর দিয়ে গত রোববার উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তাও কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের পরও সন্ত্রাসীরা আবারো বুষ্টার স্থাপনের চেষ্টা করলে শুক্রবার দুপুরে গ্রামবাসীরা একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ করেন।
গ্রামবাসী সুরাইয়া আক্তার ও জেরিন আক্তার বলেন, বসতবাড়ি এলাকায় ড্রেজারের বুষ্টার স্থাপন করলে বিকট শব্দে স্কুল-কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় ব্যাঘাত সৃষ্টি হবে এবং বয়স্ক ব্যক্তিরা অসুস্থ হয়ে পড়বেন এবং পাশেই মসজিদে মুসল্লিরা মনযোগ দিয়ে নামায পড়তে পারবেননা। তাদের দাবি ড্রেজারের বুষ্টারটি যেন অন্যত্র স্থাপন করা হয়।
ষোলপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সিরাজুল ইসলাম জানান, তিনি পাচঁ বিঘা জমিতে পেয়ারা চাষ করেছেন। তার পেয়ারা বাগানের প্রায় অর্ধ শতাধিক পেয়ারা সহ গাছ কেটে জোরপূর্বকভাবে ড্রেজারের পাইপ বসিয়েছে প্রভাবশালীরা। এতে তার প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে। এতে বাধা দেওয়ায় হামলা মামলা ও প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছেন তারা।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত মজিবুর রহমান জানান, একটি ড্রেজারের বুষ্টার বসানোর কথা শুনেছি। তবে এ ঘটনার সঙ্গে তিনি জড়িত নন বলে দাবি করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদ এলাহী জানান, একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তের জন্য উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তদন্ত করার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

6