চৈতী গ্রুপের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক বাড়িঘর ভাংচুর করে জমি দখলের অভিযোগ

6

সোনারগাঁ বার্তা ২৪ ডটকম: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের টিপুরদী এলাকায় অবস্থিত তৈয়ারী পোশাক কারখানা চৈতী গ্রুপের বিরুদ্ধে গতকাল শনিবার ছোট শীলমান্দী গ্রামের নিরীহ মানুষের বাড়িঘর ভাংচুর করে জোরপূর্বক জমি দখল করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ভুক্তভোগী পরিবার সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী এলাকাবাসীরা জানান, সোনারগাঁ পৌরসভার টিপুরদী এলাকায় চৈতি গ্রুপ কর্তৃপক্ষ দীর্ঘ দিন ধরে ছোট শীলমান্দি গ্রামের নিরীহ মানুষের বাড়িঘর জোরপূর্বক দখল করার চেষ্টা চালিয়ে আসছে। সম্প্রতি ওই গ্রামের বসত ভিটা বিক্রির জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয় এতে রাজী না হওয়ায় গতকাল শনিবার সকালে চৈতি গ্রুপের উপ মহা ব্যবস্থাপক মিজানুর রহমানের নির্দেশে কোম্পানীর লালিত সন্ত্রাসী ও স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাদের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জনের একদল বাহিনী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ছোট শীলমান্দি গ্রামের নুরে আলম, আসাদ মিয়া ও জাকির হোসেনের বাড়িঘর ভাংচুর ভেকু (এক্সভেটর) দিয়ে গুড়িয়ে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে সীমানা পিলার দিয়ে প্রায় ৪৮ শতাংশ জমি দখল করে নেয়। এ সময় বাধা দেওয়ায় তাদেরকে কোম্পানীর শ্রমিক দিয়ে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। ঘটনাস্থলে শিল্প পুলিশের একটি দল উপস্থিত থাকলেও তারা কোনো পদক্ষেপ নেননি। পরে ভুক্তভোগীরা ৯৯৯ ফোন দিলে থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী আসাদ মিয়ার স্ত্রী ফরিদা ইয়াছমিন বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
ভূক্তভোগী আসাদ মিয়ার স্ত্রী ফরিদা ইয়াছমিন জানান, চৈতি কোম্পানির অনুরোধে আমার পৈত্রিক বাড়ির ১১ শতাংশ জমি বিক্রি করি। আবারো আমার বসতভিটা বিক্রির জন্য চাপ দেন। তিনি রাজী না হওয়ায় কোম্পানীর লালিত সন্ত্রাসী ও স্থানীয় যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাদের দিয়ে বাড়ীঘর ভাংচুর করে বেকু দিয়ে মাটির সঙ্গে গুড়িয়ে দেয়। আমরা বাধা দেওয়ায় হামলা চালিয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।
ভুক্তভোগী জাকির হোসেন জানান, আমার পৈত্তিক সম্পতিতে বালু ভরাট করি। রাতের আধাকে বেকু দিয়ে বালু তুলে নিয়ে দখল করে নেয় চৈতি গ্রুপ। আমরা জমির টাকা দাবি করলে বাজার মূল্য দিচ্ছেনা।
এ বিষয়ে চৈতি গ্রুপের উপ-মহা ব্যবস্থাপক মিজানুর রহমান জানান, কারখানা কর্তৃপক্ষ দীর্ঘ দিন ধরে জমি ক্রয় করলেও তারা দখল ছাড়ছেনা। আমরা ক্রয়কৃত জমিতেই দখল নিয়েছি। চৈতি গ্রুপ অবৈধভাবে একখন্ড জমিও দখল করবেনা।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ গ্রহন করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

6