ফার্নিচার দোকানের কর্মচারীকে গলা কেটে হত্যা

6

সোনারগাঁ বার্তা ২৪ ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ে বাধা দেওয়ায় শরিফুল ইসলাম (৩৬) নামে এক ফার্নিচার দোকানের কর্মচারীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। এঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এলাকাবাসীরা শাহ আলম নামের এক ছিনতাইকারীকে হাতেনাতে ছুরি ও রক্তমাখা শার্ট সহ আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাত ১০টায়।

নিহত শরীফুল ইসলাম চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার সতন্তর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে এবং
আটক শাহ আলম সোনারগাঁ পৌরসভার অনন্তমুছা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে।

এলাকাবাসীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে সোনারগাঁ থানা রোডের মেন্দীভিটা এলাকায় আয়েশা আমজাদ ক্লিনিকের সামনে স্থানীয় নিলা ফার্নিচার দোকানের কর্মচারী শরীফুল ইসলামের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে ছিনতাইকারী শাহ আলম।এসময় শরীফুল ইসলাম তার মোবাইল না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গলায় ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। আহত শরীফুল ইসলামের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায় । এদিকে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত শাহ আলমকে এলাকাবাসী ধাওয়া করে ছুরি ও রক্তমাখা শার্ট সহ আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।
সোনারগাঁ থানার পুলিশ পরিদর্শক মাহফুজুর রহমান সোনারগাঁ বার্তা ২৪ ডটকমকে জানান, স্থানীয় নিলা ফার্নিচার দোকানের কর্মচারী শরীফুল ইসলামের মোবাইল ফোন ছিনতাই করার সময় সে বাধা দিলে তাকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত এলাকাবাসী ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত ছুরি ও রক্তমাখা শার্ট সহ শাহআলমকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। শাহ আলম সোনারগাঁ থানা পুলিশের তালিকাভুক্ত ব্যবসায়ী ও মাদকাসক্ত। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে

6